Sahre Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

হারের বৃত্ত থেকে বের হলো চিটাগং


১৮ নভেম্বর ২০১৬ শুক্রবার, ০৫:৫৩  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


হারের বৃত্ত থেকে বের হলো চিটাগং

ঘরের মাঠে এসে জয়খরা ঘুচল চিটাগং ভাইকিংসের। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মোহাম্মদ নবির বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ১৯০ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে চিটাগং ভাইকিংস। জবাবে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৭১ রানে থামে রাজশাহীর ইনিংস। ফলে ১৯ রানের জয় পায় চিটাগং।

টস জিতে চিটাগংকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠান রাজশাহীর অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। শুরুটা ভালই করেছিল রাজশাহী। দ্বিতীয় ওভারেই তামিমকে ফেরান মিরাজ। তবে এর পর ৫ম উইকেটে ১০৫ রানের জুটি গড়েন এনামুল ও নবি।

মাত্র ৩৭ বলে ৬ চার ও ৬ ছক্কায় ৮৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন নবি। তাতে ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে এ রান সংগ্রহ করে চিটাগং। এদিন এনামুল হকের ব্যাট থেকেও আসে ফিফটি। ৪০ বলে ৫০ রান করে আউট হন এনামুল। এছাড়া ডোয়াইন স্মিথ করেন ৩৪ রান।

রাজশাহীর পক্ষে সামিত প্যাটেল ২টি এবং মেহেদী হাসান মিরাজ, ফরহাদ রেজা ও আবুল হাসান নেন ১টি করে উইকেট।

জবাবটা ভালই দিচ্ছিলেন রাজশাহীর ব্যাটসম্যানরা। উদ্বোধনী জুটিতে ২৭ বলে ৪৪ রান তোলেন মমিনুল ও জুনায়েদ সিদ্দিক। ১৪ বলে ২০ রান করে আউট হন মমিনুল। ২৮ বল খেলে ৩৮ রান করেন পরে দলে সুযোগ পাওয়া জুনায়েদ। তিনে নেমে ৩০ বলে ৪৬ রান করেন চলতি বিপিএলের একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান সাব্বির রহমান।

সাব্বির আউট হওয়ার পরই খেই হারিয়ে ফেলে রাজশাহী। এর পর আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি ক্রিজে। নিয়মিতভাবে উইকেট খুঁইয়ে ১৭১ রানে গিয়ে থামে তাদের ইনিংস। আর রাজশাহীর ইনিংসে সবচেয়ে বড় আঘাত করেন তাসকিন আহমেদ। ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে তুলে নেন ৫ উইকেট। এছাড়া ইমরান খান জুনিয়র নেন দুটি উইকেট।

৬ ম্যাচে দ্বিতীয় জয় নিয়ে টেবিলের চারে উঠে এসেছে চিটাগং। ৪ ম্যাচে ১ জয় ও ৩ হারে ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচে অবস্থান রাজশাহীর।

এর পরের ম্যাচে মুখোমুখি হবে মাশরাফির কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ও রংপুর রাইডার্স।
 

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: