Sahre Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

দুঃসময়ে পাশে থাকায় কৃতজ্ঞতা নাফিসা কামালের


২১ নভেম্বর ২০১৬ সোমবার, ০৭:০৮  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


দুঃসময়ে পাশে থাকায় কৃতজ্ঞতা নাফিসা কামালের

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চলতি আসরে অনেকটাই বিবর্ণ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আসরের শুরু থেকেই শুধু হারের মুখ দেখে আসছিলো মাশরাফি বিন মর্তুজার দলটি। দল নিয়ে শুরু হয় বিতর্কও। গুঞ্জন ওঠে মালিকপক্ষের সঙ্গে অধিনায়ক মাশরাফির দ্বন্দ্ব নিয়েও। অবশেষে শনিবার জয় পেয়েছে কুমিল্লা।
 
জয়ের পর বাংলাদেশের একটি গণমাধ্যমকে পাঠানো এক বিবৃতিতে কিছু কথা জানান কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কর্ণধার নাফিসা কামাল। তার দুঃসময়ে পাশে থাকার জন্য ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীদের ধন্যবাদ জানান তিনি।
 
বিবৃতিতে নাফিসা কামাল বলেন, আপনি যখন সবার ওপরে থাকবেন, সব কিছু খুব সহজ মনে হবে। ভক্ত, বন্ধু, শুভাকাঙ্খীদের তখন চারপাশে পাবেন। কিন্তু যখন হারতে শুরু করবেন, তখনই বুঝতে পারবেন, বাস্তবতা কাকে বলে।
 
তিনি বলেন, আজ আমি অন্তত এটা বলতে পারি যে, এই একটানা পরাজয়ের পরও যে কোনো সময়ের চেয়ে আমার এখন বন্ধু, সমর্থক এবং শুভাকাঙ্খী বেশি। এতো ভালোবাসা আর সম্মান আমাকে মুগ্ধ করে এবং বিস্মিত করে।
 
শনিবারের জয় নিয়ে নাফিসা কামাল বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, অবশেষে শনিবার আমরা একটা জয় পেয়েছি। কিন্তু আমার কাছে মনে হয়েছে, আমরা বুঝি বিশ্বকাপ জিতে ফেলেছি। গত দু দিন আমি প্রতিটা মুহূর্তে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে শুভেচ্ছা পেয়েছি। টং দোকানের চা ওয়ালা থেকে শুরু করে মন্ত্রী মহোদয়রা অবধি; আমাকে সবাই অভিনন্দন জানিয়েছেন।
 
মিডিয়ায় উঠা গুঞ্জন নিয়ে তিনি বলেন, কিছু লোক আমার এবং আমাদের অধিনায়ককে নিয়ে কিছু নেতিবাচক খবর প্রচার করেছেন। আমি জানি আপনারা কারা। আমি আপনাদের এই কাজ মনেও রাখবো না, যদি আপনারা সত্যিই মনে করেন যে, নিতান্ত হতাশা থেকে এই কাজ করেছেন।
 
নাফিসা কামাল বলেন, এটা দল যখনই খারাপ করে, আপনারা ম্যানেজমেন্ট অথবা খেলোয়াড়দের দোষ দেন। কিন্তু একবার কেউ অনুভব করেন না যে, দলের মালিক বা অধিনায়ক যে কারো চেয়ে এই খারাপ ফলাফলে বেশি কষ্ট পাচ্ছেন! যাই হোক, আপনাদের এই নেতিবাচক প্রচারণা আমাদের দলের সকলকে আরও ঘনিষ্ঠ করেছে, আমরা আরও শক্ত হয়ে উঠেছি। ফলে সমালোচকদেরও ধন্যবাদ।
 
দল নিয়ে তিনি আরো বলেন, আমি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিদেশি খেলোয়াড় রিক্রুটের সাথে জড়িত ছিলাম। এরপর আমি অধিনায়ক, কোচ ও ম্যানেজার নির্বাচন করেছি। আমার কাজ এইটুকুতেই শেষ হয়ে গেছে। এরপর থেকে ড্রাফটে (খেলোয়াড় নিলাম) সকল স্থানীয় খেলোয়াড়গ নির্বাচন থেকে শুরু করে দলের সকল নীতিগতো সিদ্ধান্ত এই তিন জনই (অধিনায়ক, কোচ ও ম্যানেজার) নিয়েছেন। আমি কোনো একটা ন্যূনতম সিদ্ধান্তও দেইনি। শুরু থেকে আমার ওনাদের প্রতিটা সিদ্ধান্তে পূর্ন আস্থা ছিলো, এখনও পূর্ণ আস্থা আছে। তারা সেরা দল করেছেন।
 
সবশেষে ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমাদের সাথে থাকুন। আমরা অবশ্যই আরও শক্তিশালী হয়ে, আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসবো, ইনশাল্লাহ।
 

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: