Runner Automobiles
Sea Pearl Beach Resort & SPA Ltd
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

ব্র্যাক ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়িয়েছেন বিদেশিরা


০২ ডিসেম্বর ২০১৯ সোমবার, ০২:০২  পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক


ব্র্যাক ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়িয়েছেন বিদেশিরা

শেয়ার বিক্রির ধারাতেই আছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা। গত মাসে নভেম্বরে তারা যত টাকার শেয়ার কিনেছেন, এর থেকে বিক্রি করা শেয়ারের বাজারমূল্য ছিল প্রায় ১০০ কোটি টাকা। বিদেশিদের পোর্টফোলিও থেকে শেয়ার বিক্রির এ ধারা টানা ৯ মাস ধরে চলছে। পর্যালোচনায় দেখা গেছে, তাদের বিক্রি করা শেয়ারের এক-তৃতীয়াংশের কিছুটা কম শেয়ার কিনছেন দেশীয় বিনিয়োগকারীরা। অর্থাৎ বিদেশিদের শেয়ার কেনাবেচার বড় অংশ ছিল নিজেদের মধ্যে। আর ব্র্যাক ব্যাংকে বিদেশিরা বিনিয়োগ বাড়িয়েছেন।

সংশ্নিষ্ট সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গত মাসে বিদেশিরা যত শেয়ার কিনেছেন সেগুলোর বাজারমূল্য ছিল ২২২ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। অন্যদিকে তাদের বিক্রি করা শেয়ারের বাজারমূল্য ছিল ৩২১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। অর্থাৎ নভেম্বরে নিট ৯৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন, যা এর আগের মাসে ছিল ৯৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।

সব মিলে গত মাসে বিদেশিরা ৫৪৩ কোটি ৭৭ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার কেনাবেচা করেন। নভেম্বরে শুধু ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া সব শেয়ারের বাজারমূল্য ছিল ৭ হাজার ৪১০ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। এ হিসাবে কেনা ও বেচা উভয় দিক মিলে গত মাসের লেনদেনে বিদেশিদের অংশ ছিল মোটের ৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে কেনায় বিদেশিদের অংশ ছিল ৩ শতাংশ এবং বিক্রিতে ৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ।

চলতি বছরের ১১ মাসের মধ্যে শুধু প্রথম দু`মাস (জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি) বিদেশিদের মধ্যে শেয়ার বিক্রির থেকে কেনার ধারা বেশি ছিল। ওই দুই মাসে নিট ৪৯৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন তারা। ওই সময়ে কিনেছিলেন ১ হাজার ৮২ কোটি ৩৫ লাখ টাকার শেয়ার এবং বিক্রি করেছিলেন ৫৮৩ কোটি ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার। মার্চ থেকে নভেম্বর পর্যন্ত কেনার থেকে বেশি বিক্রি করেছেন ৮৭৬ কোটি ৯৬ লাখ টাকার শেয়ার। এ সময়ে বিদেশিরা কিনেছেন ২ হাজার ৪৪৫ কোটি ৪১ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার। অন্যদিকে বিক্রি করেছেন ৩ হাজার ৩২২ কোটি টাকার শেয়ার।

বিক্রির শীর্ষে :গত ৯ মাসের পরিসংখ্যান বিশ্নেষণে দেখা গেছে, ৭৯ কোম্পানি থেকে বিদেশিদের শেয়ার কমেছে এবং বেড়েছে ৩৩টিতে। এর মধ্যে শেয়ার ধারণ কমার শীর্ষে রয়েছে সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ ও বৃদ্ধিতে প্রিমিয়ার ব্যাংক। গত ফেব্রুয়ারি শেষে সিনোবাংলায় বিদেশিদের মোটের ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ শেয়ার ছিল। এখন এ কোম্পানিতে তাদের কোনো শেয়ার নেই। এ সময়ে লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, এইচআর টেক্সটাইল ও জিবিবি পাওয়ার থেকেও বিনিয়োগ পুরোপুরি প্রত্যাহার করেছেন তারা। গত ফেব্রুয়ারি শেষে এ তিন কোম্পানির মোট শেয়ারে বিদেশি বা প্রবাসীদের মালিকানা ছিল সাকল্যে যথাক্রমে ৬ দশমিক ১২ শতাংশ, ৪ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং শূন্য দশমিক ৫৭ শতাংশ।

এ ছাড়া জিএসপি ফাইন্যান্স থেকে তাদের অংশ কমেছে ৩ দশমিক ৫৪ শতাংশ। ২ শতাংশের বেশি কমেছে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, শাশা ডেনিম, রূপালী লাইফ, মালেক স্পিনিং ও এপেক্স স্পিনিং থেকে। পৌনে ২ শতাংশ কমেছে ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো ও বেক্সিমকো ফার্মা থেকে। সিটি ব্যাংক ও সিঙ্গার বাংলাদেশ থেকে দেড় শতাংশের বেশি। অন্যদিকে গত ফেব্রুয়ারিতে প্রিমিয়ার ব্যাংকে বিদেশি বা প্রবাসীদের কোনো শেয়ার ছিল না। নভেম্বর শেষে ব্যাংকটির মালিকানার ৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ গেছে এদের হাতে।

তালিকাভুক্ত যেসব কোম্পানিতে বিদেশিদের শেয়ার বেশি এগুলোর মধ্যে গত ৯ মাসে শুধু ব্র্যাক ব্যাংকে তাদের বিনিয়োগ বেড়েছে। ফেব্রুয়ারি শেষে ব্যাংকটিতে বিদেশিদের অংশ ছিল মোটের ৪১ দশমিক ৭২ শতাংশ। নভেম্বরে তা বেড়ে ৪৩ দশমিক ১৫ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। অর্থাৎ ব্র্যাক ব্যাংকের মোট শেয়ার বিবেচনায় তাদের মালিকানা ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ বেড়েছে।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: