Sahre Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

রাজধানী ছাড়ছেন মানুষ, কমেছে মাছ-সবজির দাম


০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ শুক্রবার, ০৮:৪৯  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


রাজধানী ছাড়ছেন মানুষ, কমেছে মাছ-সবজির দাম

ঈদুল আযহার ছুটিতে রাজধানী ছাড়ছেন মানুষ। যার হাওয়া লেগেছে রাজধানীর সবজিবাজারেও। সপ্তাহের ব্যবধানে সব ধরনের সবজির পাশাপাশি কমেছে মাছের দাম। একই সঙ্গে কমেছে ডিম ও মুরগির দাম। তবে দাম বেড়েছে লেবু, শশার।

শুক্রবার ছুটির দিনে রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে এমন চিত্র।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাজারে সবজি ও মাছের সরবরাহ বেশি। তাই দামও গত সপ্তাহের তুলনায় কম। এছাড়া ঈদের মানুষ বাড়ি যাচ্ছে। আবার অনেকে কোরবানির পশু কেনায় ব্যস্ত। তাই সরবরাহের তুলনায় চাহিদা কিছুটা কম থাকায় দাম কমেছে।

আর বিক্রেতারা বলছেন, পাইকারি বাজার থেকে কম দামে কেনা তাই কম দামে বিক্রি করছি।

এদিকে, বাজারে প্রচুর ইলিশ দেখা গেলেও দাম তেমন কমেনি অভিযোগ ক্রেতাদের।

এদিকে গত সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ২ থেকে ৫ টাকা পর্যন্ত কমেছে সবজির দাম। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২৪-২৬ টাকায়। পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়। শিমের দাম ৬০ টাকা, বেগুন ৪০-৫০ টাকা, করলা ৪০-৫০ টাকা, টমেটো ৮০ থেকে ৯০ টাকা, গাজর ৭০ টাকা, মুলা ৪০ টাকা, শশা ৫০-৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, বরবটি ৪৫-৫৫ টাকা, ঢেঁড়শ ২৮-৩২ টাকা, কচুর লতি ৪০-৪৫ টাকা, পটল ৪০ টাকা, কচুরমুখী ৪০ টাকা।

এছাড়া প্রতি আঁটি লাউ শাক ২৫ টাকা, লাল শাক ও সবুজ শাক ২০ টাকা, পালং শাক ২৫ টাকা, পুঁই শাক ২০ টাকা ও ডাটা শাক ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ব্রোকলি প্রতিটি ৩০-৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি হালি লেবু ২০-৩০ টাকা এবং কাঁচকলা হালি ৩০-৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া কাঁচামরিচ ৮০ টাকা কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে।

মহাখালী কাঁচা বাজারের বিক্রেতা আলমগীর বলেন, সবজির সরবারহ বেশি রয়েছে। তাই গত সপ্তাহের তুলনায় দাম কিছুটা কমেছে। ঈদের আগে দাম বাড়ার সম্ভাবনা কম।

এদিন গরুর মাংস প্রতি কেজি ৪শ ২০ টাকায়, খাসি ৫৫০-৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকায়।

রাজধানীর বাজারে ৭০০ থেকে ৮০০ গ্রামের প্রতিহালি ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১৮শ থেকে ২ হাজার টাকায়। এছাড়া প্রতি কেজি রুই মাছ ২০০-৩০০ টাকা, তেলাপিয়া ১২০-১৮০, সিলভার কার্প ১২০-১৩০ টাকা, আইর মাছ ৪০০-৫০০ টাকা, গলদা চিংড়ি ৫০০-৮০০ টাকা, পুঁটি ১৮০-২০০ টাকা, পোয়া ২৫০-৩৫০ টাকা, মলা ২২০-৩০০ টাকা, পাবদা ৫০০-৬০০ টাকা, বোয়াল ৩৫০-৫০০ টাকা, শিং ৫০০-৭০০, দেশি মাগুর ৬৫০-৭০০ টাকা, শোল মাছ ৪০০-৬০০ টাকা, পাঙ্গাস ১২০-১৬০ টাকা, চাষের কৈ ১৫০-২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও মসলার বাজার ঘুরে দেখা যায়, পেঁয়াজের মধ্যে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩৮ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া আমদানি করা পেঁয়াজ ২৫ থেকে ৩০ টাকা, রসুন ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা, আদা মানভেদে ৮০ থেকে ১২০ টাকা, দারুচিনি ৩০০ টাকা, এলাচ মানভেদে ১ হাজার থেকে ১৪০০ টাকা, লবঙ্গ ১৫০০ টাকা, জিরা ৪০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

মহাখালী কাঁচাবাজারে এক ক্রেতা বেসরকারি চাকরিজীবী আশরাফুল জানান, গত সপ্তাহের তুলনায় ২ থেকে ৫ টাকা কম দামে সবজি কিনেছি। তবে কাচাঁমরিচ, ধনেপাতা, শশা, লেবুর দাম একটু বেশি। এছাড়াও বাজারে অনেক ইলিশ উঠেছে কিন্তু দাম তেমন কমেনি।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: