Nahee Aluminum
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

৬ লক্ষণে জানুন প্রেমিকা বা স্ত্রী অন্য পুরুষে আসক্ত


২৫ নভেম্বর ২০১৬ শুক্রবার, ০৫:৫৭  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


৬ লক্ষণে জানুন প্রেমিকা বা স্ত্রী অন্য পুরুষে আসক্ত

প্রেম কমবেশি প্রতিটি পুরুষের জীবনেই আসে। কিন্তু সঙ্গিনীর কাছ থেকে একনিষ্ঠ ভালবাসা পাওয়ার সৌভাগ্য হয় না সব পুরুষের। অনেক সময় দেখা যায়, কোনো মেয়ে এক জন পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে থাকা সত্ত্বেও জড়িয়ে পড়েন অন্য কোনো পুরুষের সঙ্গে। বিষয়টি তিনি গোপন রাখেন তার প্রথম প্রেমিকের কাছে।

সেক্ষেত্রে আপনার প্রেমিকা বা স্ত্রী কিংবা সঙ্গিনী ভালবাসায় আপনাকে ঠকাচ্ছেন কি না, তা বোঝার কোনো উপায় আছে? রিলেশনশিপ ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ ওয়ার্ল্ড অফ অ্যামোর জানাচ্ছে, একটি মেয়ে ভালবাসায় প্রতারণা করছে কি না তা ৬টি লক্ষণ দেখে বোঝা সম্ভব।

গা ছাড়া মনোভাব : মেয়েরা প্রকৃতিগতভাবেই যে কোনো সম্পর্কের প্রতি অত্যন্ত যত্নবান হন। আপনি কখন অফিস থেকে বাড়ি ফিরছেন, কখন খাচ্ছেন, সেগুলো যেমন নজরে রাখেন তারা, তেমনই আপনি তার জন্মদিন মনে রাখছেন কি না, কিংবা দিনে কতবার ফোন করছেন বা মেসেজ করছেন-সেগুলোও তারা খেয়াল করেন। যখন তাদের জীবনে আপনি ছাড়া দ্বিতীয় পুরুষ প্রবেশ করেন, তখন স্বাভাবিকভাবেই এই বিষয়গুলোর প্রতি প্রতি তাদের নজর কমে যায়। সম্পর্কের প্রতি একটা গা ছাড়া মনোভাব এসে যায়।

পোশাক-আশাকে আকস্মিক জাঁকজমক : কোনো মেয়ে যখন প্রথম প্রথম কোনো সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, তখন স্বাভাবিকভাবেই নিজেকে যতটা সম্ভব সুন্দর করে তোলার দিকে তার নজর থাকে। সুন্দর পোশাকে নিজেকে সাজিয়ে তোলা, উপযুক্ত প্রসাধন ব্যবহার করা-এসবের দিকে মনোযোগী হন তিনি। কিন্তু সম্পর্কের বয়স একটু বাড়ার পরে প্রেমিকের সঙ্গে বেরনোর সময়ে তাদের সাজগোজের বহর একটু কমে যায়। যদি দেখা যায়, হঠাৎ করে আপনার স্ত্রী বা প্রেমিকার সাজগোজ পোশাক-আশাকে আবার হঠাৎ করে চাকচিক্য বেড়ে গেছে, তাহলে এমন সম্ভাবনা রয়েছে যে, তিনি অন্য কোনো পুরুষের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন।

ভবিষ্যৎ সম্পর্কে উদাসীনতা : যে কোনো মেয়েই নিজের প্রেম-সম্পর্কের ভবিষ্যৎ বিষয়ে সচেতন হন। নিজের প্রেমিকের সঙ্গে ফিউচার প্ল্যান নিয়ে আলোচনা করে এই বিষয়ে নিশ্চিত হতে চান। কিন্ত হঠাৎ যদি দেখেন, আপনার প্রেমিকা আপনাদের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ নিয়ে তেমন কোনো উচ্চবাচ্য করছেন না আর, কিংবা আপনি বিয়ে বা বিবাহ-পরবর্তী জীবন নিয়ে আলোচনা করতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যাচ্ছেন, তাহলে মোটামুটি নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন যে, তার জীবনে অন্য ভালবাসার মানুষ এসে গেছেন।

শারীরিক ঘনিষ্ঠতায় অনীহা : প্রেম যে শুধু মনে সীমাবদ্ধ থাকে না তা বলাই বাহুল্য। যে মেয়ে আপনাকে ভালবাসেন, তিনি আপনার শারীরিক সান্নিধ্যও উপভোগ করবেন। কিন্তু হঠাৎ করে যদি দেখেন, শরীরী প্রেমে আপনার সঙ্গিনীর অনীহা জাগছে, তিনি আপনার কাছে আসতে চাইছেন না, তাহলে এমনটা হতেই পারে যে তার জীবনে কোনো দ্বিতীয় পুরুষ এসে গেছে।

সর্বক্ষণের ব্যস্ততা : কাউকে এড়ানোর সবচেয়ে সহজ রাস্তা ব্যস্ততার ভান করা। যদি দেখেন, আপনার প্রেমিকা বা স্ত্রী হঠাৎ করেই খুব ব্যস্ততায় ডুবে গেছেন, তাহলে সেটা আপনাকে এড়িয়ে যাওয়ার ছলও হতে পারে। ‘সামনে এগজাম, তাই ফোন করতে পারছি না’, ‘অফিসে মিটিং, তাই দেখা করতে পারছি না’—এই জাতীয় অজুহাত যদি তিনি দিতে শুরু করেন, তাহলে আপনাকে এড়িয়ে তিনি অন্য কোনো পুরুষকে সময় দিচ্ছেন কি না, সেটা যাচাই করে দেখুন। অবশ্য তিনি সত্যিই হঠাৎ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কি না, সেটাও আপনাকে বুঝে নিতে হবে।

নিজের কাজকর্ম সম্পর্কে গোপনীয়তা : আপনার প্রেমিকা বা স্ত্রী কখন কোথায় যাচ্ছেন, কী করছেন, কিংবা কার সঙ্গে দেখা করছেন সে বিষয়ে কি হঠাৎ করে গোপনীয়তা রক্ষা করতে শুরু করেছেন, স্পষ্ট করে কিছু বলতে চাইছেন না? তাহলে এমন সম্ভাবনা প্রবল যে, তিনি আপনাকে লুকিয়ে অন্য কোনো পুরুষকে সঙ্গ দিচ্ছেন।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: