Nahee Aluminum
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

ফের খুলনাকে হারালো রংপুর


২২ নভেম্বর ২০১৬ মঙ্গলবার, ০৬:৪৯  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


ফের খুলনাকে হারালো রংপুর

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি টোয়েন্টি ক্রিকেটের চতুর্থ আসরের ফিরতি পর্বেও খুলনা টাইটান্সকে হারালো রংপুর রাইডার্সে। টুর্নামেন্টের ২৩তম ম্যাচে খুলনাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে রংপুর।
 
ঢাকায় প্রথম পর্বে খুলনাকে ৪৪ রানে অলআউট করে ৯ উইকেটে ম্যাচ জিতেছিল রংপুর। এই জয়ে ৬ খেলায় ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট সংগ্রহে থাকলো রংপুরের। আর ৭ ম্যাচে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট সংগ্রহে থাকলো খুলনারও।  ১২৫ রানের সহজ টার্গেটে দলীয় ১৩ রানেই ওপেনার সৌম্য সরকারকে হারায় রংপুর। ৩ রান করে ফিরেন সৌম্য। এরপর মোহাম্মদ মিথুনের সাথে বোঝাপড়টা জমিয়ে তুলেন আফগানিস্তানের ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ। দ্বিতীয় উইকেটে দু’জনের ৭৪ রানের জুটিতে রংপুরের জয়ের পথ অনেকখানি পরিষ্কার হয়ে যায়।
 
পাঁচ বোলার ব্যবহার করেও যখন শেহজাদ-মিথুন জুটি ভাঙ্গতে পারছিলেন না খুলনার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ, তখন ষষ্ঠ বোলার হিসেবে নিজেই বল হাতে আক্রমণে আসেন তিনি। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই শেহজাদের উইকেট তুলে নেন মাহমুদুল্লাহ। ৩৮ বলে ৩৭ রান করে ফিরেন শেহজাদ। শেহজাদের বিদায়ে ক্রিজে মিথুনের সঙ্গী হন আফ্রিদি। ম্যাচটি দ্রুত শেষ করতেই ব্যাটিং অর্ডারে প্রমোশন পান চলমান আসরে মাত্র দু’বার ব্যাট করার সুযোগ পাওয়া আফ্রিদি। ২টি চার ও ১টি ছক্কায় দ্রুত ম্যাচ শেষ করার পথেই হাঁটছিলেন তিনি। কিন্তু দলের জয় থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতে ফিরে যান আফ্রিদি। ২০ বলে ২৬ রান করেন তিনি।
 
এরপর দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন মিথুন ও ইংল্যান্ডের লিয়াম ডসন। মিথুন ৩টি ছক্কা ও ১টি চারে ৪১ বলে ৪৯ ও ডসন ৫ রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচের সেরা হয়েছেন রংপুরের আফ্রিদি। এর আগে, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ দিনের প্রথম ম্যাচে টস ভাগ্যে জিতেই আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন খুলনার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। নিজেদের প্রমাণ করার ম্যাচে ব্যাট হাতে শুরু থেকে বেশ সর্তক ছিলেন খুলনার ব্যাটসম্যানরা।
 
ওই ৪৪ রানের দুঃস্মৃতি টপকাতে খুলনা মোকাবেলা করে ৫৩ বল। এজন্য ৩ উইকেট নষ্টও করে তারা। আউট হওয়া ব্যাটসম্যানরা হলেন- ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে ফ্লেচার, আব্দুল মজিদ ও অধিনায়ক রিয়াদ। ফ্লেচার ৮, মজিদ ১০ ও রিয়াদ ১১ রান করেন। লজ্জার স্কোর এড়ানোর পরই, বড় জুটি গড়তে সমর্থ হয় খুলনা। চতুর্থ উইকেটে ৫৫ বলে ৫৬ রানের ধীরগতির জুটি গড়েন ইংল্যান্ডের রিকি ওয়েসেলস ও তাইবুর রহমান। ১৭তম ওভারে বড় শট খেলতে গিয়ে দলীয় ৯৪ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেন ওয়েসেলস।
 
রংপুরের পেসার রুবেল হোসেনের শিকার হবার আগে ৩৩ বলে ২৭ রান করেন তিনি। ঐ ওভারেই বিদায় নেন তাইবুরও। ৩৭ বলে ৩২ রান করেন তিনি।  এরপরের তিন ওভারে খুলনার ব্যাটসম্যানরা ২৯ রান করতে পেরেছে আরিফুল হকের কল্যাণে। ইনিংসের শেষ ওভারে রংপুরের পাকিস্তানী খেলোয়াড় শহিদ আফ্রিদির বলে দুই ছক্কায় দলের স্কোর ৭ উইকেটে ১২৫ রানে নিয়ে যান আরিফুল। ১৩ বলে ২২ রান করেন আরিফুল। রংপুরের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন আরাফাত সানি, আফ্রিদি ও রুবেল। ক্রিকইনফো।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: