JAC EnergyPac Power
Crystal Life Insurance
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

রবির দাম বাড়ল ৪৭৫ শতাংশ, ডিএসইর সতর্কতা


১১ জানুয়ারি ২০২১ সোমবার, ০২:২৬  পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ার বিজনেস24.কম


রবির দাম বাড়ল ৪৭৫ শতাংশ, ডিএসইর সতর্কতা

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার (১১ জানুয়ারি) শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরুর অল্প সময়ের মধ্যে দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে রবি আজিয়াটা। এর মাধ্যমে শেয়ারবাজারে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হওয়া ১২ কার্যদিবসের প্রতি কার্যদিবসেই দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করলো। এদিকে কোম্পানিটির অস্বাভাবিক দর বাড়ছে বলে সতর্ক করেছে ডিএসই। এজন্য কোম্পানিটিকে নোটিশও দেওয়া হয়।

এর মাধ্যমে মাত্র ১২ কার্যদিবসেই কোম্পানিটির শেয়ার দাম সম্মিলিতভাবে বেড়েছে ২৪ হাজার ৮৮০ কোটি ১৮ লাখ ৩৪ হাজার টাকা।

দেশের শেয়ারবাজারের ইতিহাসে এর আগে কোনো কোম্পানি লেনদেন শুরুর প্রথম ১২ কার্যদিবস টানা দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করতে পারেনি। রবির আগে টানা দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করার রেকর্ড ছিল ওয়ালটনের। ওয়ালটনের শেয়ার দাম লেনদেন শুরুর প্রথম আট কার্যদিবসে দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করে।

সোমবার লেনদেনের শুরুতে ৫৫ টাকা ৭০ পয়সা করে কোম্পানিটির ৮০টি শেয়ার কেনার প্রস্তাব আসে। তবে এ দামে বিনিয়োগকারীদের বড় অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি।

এরপর কয়েক দফা দাম বেড়ে ৫৭ টাকা ৫০ পয়সা করে তিন কোটি ৫ লাখ ৩৬ হাজার ৪৪৭টি শেয়ার কেনার প্রস্তাব আসে। এর মাধ্যমে দিনের দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে কোম্পানিটি।

এরপরও কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রির প্রস্তাব আসার ঘর খালি পড়ে রয়েছে। অর্থাৎ ক্রেতা থাকলেও শেয়ারের বিক্রেতা সংকট রয়েছে।

নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং আইপিও খরচের জন্য প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) শেয়ার ছেড়ে ৫২৩ কোটি ৭৯ লাখ ৩৩ হাজার ৩৪০ টাকা সংগ্রহ করা রবির শেয়ার গত ২৪ ডিসেম্বর থেকে শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয়।

১০ টাকা অভিহিত মূল্যে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) শেয়ার ইস্যু করা রবির শেয়ার লেনদেনের শুরু থেকেই বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে।

যে কারণে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম দফায় দফায় বাড়ছে। টানা ১২ কার্যদিবস দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করার পরও বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হচ্ছেন না। ফলে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্রেতা থাকলেও এক প্রকার বিক্রেতা সংকট রয়েছে।

এ পর্যন্ত শেয়ারবাজারে কোম্পানিটির শেয়ার যে কয়দিন লেনদেন হয়েছে তার প্রতিটি দিনের দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে। ফলে ১২ কার্যদিবসেই কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে প্রায় পাঁচ গুণ বা ৪৭৫ শতাংশ।

অন্যভাবে বলা যায়, যে বিনিয়োগকারীরা আইপিওতে রবির শেয়ার পেয়েছেন তারা তা ধরে রাখলে ১২ কার্যদিবসেই তাদের টাকার পরিমান ৪৭৫ শতাংশ বেড়ে গেছে।

এর ফলে পাঁচ হাজার ২৩৭ কোটি ৯৩ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম মাত্র ১২ কার্যদিবসেই সম্মিলিতভাবে বেড়েছে ২৪ হাজার ৮৮০ কোটি ১৮ লাখ ৩৪ হাজার টাকা।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: