Nahee Aluminum
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

নাড়ি-ভুরি রপ্তানিতে সহায়তা বাড়ানোর দাবি


০৮ আগস্ট ২০১৫ শনিবার, ০৫:২৯  পিএম


গরু ও মহিষের নাড়ি-ভূড়ি রপ্তানিতে সরকারি সহায়তা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ অমাস্যুম এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন। শনিবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ দাসরকারি বি জানায় সংগঠনটির নেতারা। সরকারি সহায়তার পরিমাণ ১৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩০ শতাংশ করার দাবি জানান তারা। লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি রমাকান্ত মজুমদার বলেন, “গরু মহিষের নাড়ি-ভূড়ি, জননেন্দ্রীয় ইত্যাদি আমাদের দেশে অনেকেই খায় না। কোনো কাজে না লাগায় গরু মহিষের নাড়ি-ভূড়ি যত্র-তত্র ফেলায় তা পরিবেশ দূষণ করে। “আমাদের দেশের মানুষ না খেলেও চীন, থাইল্যান্ডসহ কয়েকটি দেশে গরু ও মহিষের নাড়ি-ভুড়ি ‘অমাস্যুম’ নামে পরিচিত, যা সেখানে অত্যন্ত জনপ্রিয় খাবার। সরকারের সহায়তায় আমরা এ পণ্য রপ্তানি করে বছরে প্রায় ২০০ কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করি।” পরিবেশ দূষণের হাত থেকে বাঁচতে ২০০২ সাল থেকে সরকার গরু মহিষের নাড়ি-ভূড়ি, জননেন্দ্রীয় ইত্যাদি রপ্তানির ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা দিয়ে আসছে বলেও জানান তিনি। রমাকান্ত মজুমদার বলেন, এ বছরের ১৩ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের এক সার্কুলারে এ খাতের নগদ সহায়তা ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করা হয়েছে, যা এ ব্যবসাকে হুমকির মুখে ফেলছে। “পরিবেশ রক্ষা করার পাশাপাশি এ খাতে জড়িত লক্ষাধিক মানুষের জীবিকা রক্ষা করতে গরু ও মহিষের নাড়ি-ভুড়ি রপ্তানির ক্ষেত্রে নগদ সহায়তা ১৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩০ শতাংশ করা হোক।” সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. ইলিয়াস ও সহ-সভাপতি মো. তালহা।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: