Runner Automobiles
Sea Pearl Beach Resort & SPA Ltd
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

ঋণ নিয়ে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের আগ্রহ একাধিক ব্যাংকের


২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার, ০২:০৩  পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক


ঋণ নিয়ে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের আগ্রহ একাধিক ব্যাংকের

 

শেয়ারদরে মিশ্রধারায় শেষ হয়েছে চলতি সপ্তাহের শেয়ারবাজারের লেনদেন। গতকাল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ব্যাংক ও বীমা খাতের অধিকাংশ শেয়ারদর বৃদ্ধির পাশাপাশি বৃহৎ মূলধনি কোম্পানি গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মা, ইউনাইটেড পাওয়ারের দর বাড়ার ওপর ভর করে বেড়েছে সূচক।

দিনের লেনদেন শেষে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গতকাল প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৪ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে ১৫২টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৫৫টির এবং অপরিবর্তিত থেকেছে ৪৭টির দর। প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৬ পয়েন্ট বেড়ে ৪৯৬৮ পয়েন্টে উঠেছে।

অপর শেয়ারবাজার সিএসইতে গতকাল ২৫২ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে ১১০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১০৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৮টির দর। এতে এ বাজারের প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৩৯ পয়েন্ট বেড়ে ৯১৬১ পয়েন্ট ছাড়িয়েছে।

উভয় বাজারে গতকাল কেনাবেচা হয়েছে ৪২৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার। এর মধ্যে ডিএসইতে কেনাবেচা হয়েছে ৪১১ কোটি ৭৪ লাখ টাকার, যা বুধবারের তুলনায় ৯৩ কোটি ২৯ লাখ টাকা বেশি। সিএসইতে কেনাবেচা হওয়া শেয়ারের মোট মূল্য ছিল ১৫ কোটি ৮৩ লাখ টাকা।

আগের দু`দিনের দরপতনের পর গতকাল ব্যাংক খাতের শেয়ারদর বৃদ্ধির কারণ প্রসঙ্গে বাজার সংশ্নিষ্টরা জানান, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারের পর একাধিক ব্যাংক রেপোর মাধ্যমে ঋণ করে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করার আগ্রহ দেখিয়েছে। বাজারে এমন খবর আসার পর ব্যাংকের শেয়ারদর বেড়েছে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইতে তালিকাভুক্ত ৩০ ব্যাংকের মধ্যে ১৫টির দর বেড়েছে, কমেছে সাতটির ও বাকি আটটির দর ছিল অপরিবর্তিত। এর মধ্যে ব্যাংক এশিয়ার শেয়ারদর সাড়ে ৯ শতাংশ বেড়ে ১৯ টাকা ৮০ পয়সায় এবং ঢাকা ব্যাংকের শেয়ারদর সোয়া ৩ শতাংশ বেড়ে ১২ টাকা ৪০ পয়সায় উঠেছে।

এ ছাড়া বীমা খাতের ৪৭ কোম্পানির মধ্যে ৩২টির দর বেড়েছে ও কমেছে ১৩টির। দরবৃদ্ধি পাওয়া বীমার শেয়ারের মধ্যে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের দর সর্বাধিক পৌনে ১০ শতাংশ বেড়ে ৩৬ টাকায়, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের দর সোয়া ৮ শতাংশ বেড়ে ৪৭ টাকা ৪০ পয়সায় উঠেছে। ব্যাংক ও বীমার শেয়ারদর বাড়লেও আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতে ছিল মিশ্রধারা। এ খাতে লেনদেন হওয়া ২২ শেয়ারের মধ্যে আটটির দর বেড়েছে, কমেছে ১০টির।

আর্থিক খাতের বিপরীত চিত্র দেখা গেছে বেশিরভাগ উৎপাদন ও সেবামুখী খাতের শেয়ারদরে। গত কয়েকদিনের মতো গতকালও বস্ত্র খাতের বেশিরভাগ শেয়ার দর হারিয়েছে। খাতটির ৫৫ কোম্পানির মধ্যে ১৫টির দর বেড়েছে, কমেছে ৩০টির। তথ্য ও প্রযুক্তি খাতের ৯ কোম্পানির মধ্যে সাতটির দর কমেছে। চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য খাতের ছয় কোম্পানির মধ্যে দর হারিয়েছে চার শেয়ার। এ ছাড়া জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের ১৯ কোম্পানির মধ্যে আটটির দর বেড়েছে, কমেছে ১০টির। প্রকৌশল খাতের ৩৮ কোম্পানির মধ্যে ২০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১২টির। ওষুধ ও রসায়ন খাতের ৩২ কোম্পানির মধ্যে ১৬টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৪টির।

গতকাল বৃহস্পতিবার বহুজাতিক ও রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানিগুলোর ক্ষেত্রেও মিশ্রধারা দেখা গেছে। এর মধ্যেও গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন, সিঙ্গার, মারিকো, রেকিট বেনকিজার ও গ্রামীণফোনের শেয়ারদর বেড়েছে, কমেছে লিনডে বিডির। রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে রেনউয়িক যজ্ঞেশ্বরের শেয়ারদর বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত আছে। গতকাল শেয়ারটির দর ৮৯ টাকা বেড়ে এক হাজার ৫৮৩ টাকা ছাড়িয়েছে। এ ছাড়া ন্যাশনাল টির শেয়ারদর ১০ টাকা ৬০ পয়সা বেড়ে ৬৮১ টাকায়, ইস্টার্ন কেবলসের দর ২১ টাকা ৬০ পয়সা বেড়ে ২৬৯ টাকায় উঠেছে।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: