Sahre Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

তৃতীয় প্রান্তিকে রবির রাজস্ব বেড়েছে ১১.৫ শতাংশ


২৫ নভেম্বর ২০১৬ শুক্রবার, ০৬:৫৯  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


তৃতীয় প্রান্তিকে রবির রাজস্ব বেড়েছে ১১.৫ শতাংশ

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেডের চলতি ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) রাজস্ব বেড়েছে ১১ দশমিক ৫ শতাংশ। একই সময় নেটওয়ার্ক বিস্তারে তারা ব্যয় করেছে ২৯০ কোটি টাকা। যদিও ইন্টারনেট ব্যবসার প্রসারের কারণে রাজস্ব বাড়লেও বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনর্নিবন্ধনের বাইরে থাকা সিম বন্ধ করে দেওয়ায় গ্রাহকসংখ্যা কিছুটা কমে ২ কোটি ৩৮ লাখ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রবি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তৃতীয় প্রান্তিকের এই অর্থনৈতিক ফলাফল জানিয়েছে। গ্রাহকসংখ্যা কমার বিষয়ে রবি বলেছে, মোবাইল সেবার ওপর বাড়তি ১ শতাংশ সারচার্জ ও ২ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করার ফলে মোবাইল ফোন সেবা গ্রহণ আরও ব্যয়বহুল হওয়ায় প্রবৃদ্ধির ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। গ্রাহকসংখ্যার দিক থেকে বাজারে এখন রবির অংশ ২০ দশমিক ৫ শতাংশ।

রবি জানায়, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এ বছর মোট রাজস্ব ১ শতাংশ কমেছে। অন্যদিকে ইন্টারনেট সেবা থেকে রাজস্ব বৃদ্ধির হার ৩৪ দশমিক ১ শতাংশ। আবার ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে রবির পরিচালন মুনাফা (ইবিআইটিডিএ) ৩২ দশমিক ৭ শতাংশ। নেটওয়ার্ক খাতে বিনিয়োগ এবং বাজারে পণ্য ও সেবার মূল্য নিয়ে তুমুল প্রতিযোগিতার কারণে এই মুনাফা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪ শতাংশীয় মান কম। দেশজুড়ে নেটওয়ার্কের আধুনিকায়ন ও বাড়তি করারোপের ফলে প্রত্যাশিত মুনাফা অর্জন করতে পারেনি রবি।

রবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে মোবাইল ফোন সেবা থেকে রাজস্ব লক্ষণীয় পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে চলতি বছরের ৩১ মের পর বায়োমেট্রিক নিবন্ধনহীন সিমের সংযোগ বন্ধ করে দেওয়ার ফলে ব্যবসায়িক অগ্রগতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এরপরও গ্রাহকদের সেরা মোবাইল সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে নেটওয়ার্কের বিস্তার ও আধুনিকায়নে ক্রমাগত বিনিয়োগ করে চলেছি।’

এদিকে ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে রবি রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিয়েছে ৩৫০ কোটি টাকা, যা এ প্রান্তিকের মোট রাজস্বের ২৫ দশমিক ৩ শতাংশ। ১৯৯৭ সালে কার্যক্রম শুরুর পর থেকে রবি এ পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিয়েছে ১৭ হাজার ৩০ কোটি টাকা। অন্যদিকে একই সময়ে শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ হিসেবে দিয়েছে ২৯০ কোটি টাকা।

এয়ারটেলের সঙ্গে একীভূত হওয়া প্রসঙ্গে রবি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, রবিতে এখন আজিয়াটার মালিকানা ৬৮ দশমিক ৭ শতাংশ, ভারতী এয়ারটেলের ২৫ শতাংশ ও এনটিটি ডকোমোর ৬ দশমিক ৩ শতাংশ। প্রায় ৩ কোটি ২২ লাখ সক্রিয় গ্রাহক নিয়ে রবি এখন বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: