Nahee Aluminum
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

বনানীতে ধর্ষণ: আপন জুয়েলার্সের সব লেনদেনের হিসাব চেয়ে চিঠি


১১ মে ২০১৭ বৃহস্পতিবার, ০৭:০৬  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


বনানীতে ধর্ষণ: আপন জুয়েলার্সের সব লেনদেনের হিসাব চেয়ে চিঠি

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের দেশে-বিদেশে অবস্থিত সব ব্যাংক অ্যাকাউন্টের লেনদেনের হিসাব চেয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। সম্প্রতি রাজধানীর বনানীতে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত
অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মঈনুল খান এ নির্দেশনা জারি করেন। পরে তা বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠান।

ড. মঈনুল খান বলেন, আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের লেনদেন স্বচ্ছ নয়। তার একাধিক অপরাধের বিষয়ে আমরা আগে থেকেই তদন্ত করছি। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে লেনদেনের হিসাব নিয়ে তিনি স্মাগলিং কিংবা মানি লন্ডারিংয়ের সঙ্গে জড়িত কিনা এগুলো খুঁজে দেখা হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের তদন্তে যদি দিলদার আহমেদের কোনো অনিয়ম ধরা পড়ে তবে তার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দিলদার আহমেদের শুধু দেশেই না বিদেশেও যদি কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে সেগুলোর লেনদেন সংক্রান্ত সব তথ্যও উদঘাটন করা হবে।

গত ২৮ মার্চ দ্য রেইন ট্রি হোটেলে জন্মদিনের পার্টিতে আমন্ত্রণ করে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ করে আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত ও তার বন্ধুরা। গত শনিবার রাতে ভুক্তভোগীদের একজন বনানী থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করে। সাফাত ছাড়াও ওই মামলার অন্য আসামিরা হলেন- নাঈম আশরাফ (৩০), সাদমান সাকিফ (২৭), সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল (২৬) ও অজ্ঞাতনামা দেহরক্ষী।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: