Nahee Aluminum
Share Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

ফুটবলে নজিরবিহীন ঘটনা!


০৪ জানুয়ারি ২০১৭ বুধবার, ০৬:২০  পিএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


ফুটবলে নজিরবিহীন ঘটনা!

বাংলাদেশের ফুটবল আগে এখনো এমন ঘটনা দেখেনি। দেখল আজই প্রথম। নজিরবিহীন এই ঘটনার স্থান বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম। এখানেই আজ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে অবনমন প্রশ্নে দুই দলের প্রথম প্লে-অফ খেলার কথা ছিল। কিন্তু উত্তর বারিধারা বা ফেনী সকার কোনো দলই এল না মাঠে খেলতে! ম্যাচ আয়োজনের সব ব্যবস্থা করা ছিল। মাঠে নেমেছিলেন রেফারিরাও। নির্ধারিত ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে আনুষ্ঠানিকতার বাঁশিটি বাজিয়ে দেন রেফারি জসিমউদ্দিন।

দুই দলের খেলার না কারণ তাঁদের আবদার—উত্তর বারিধারা ও ফেনী সকার দুই দলেরই আবদার প্লে অফ না খেলে প্রিমিয়ারে থেকে যাওয়ার। লিগের পয়েন্ট তালিকার শেষ দুই স্থানে থাকা এই দুটি ক্লাবের পয়েন্টও সমান।

এই ‘আবদার’ অবশ্য মানার কোনো কারণ খুঁজে পায়নি বাফুফে। কিন্তু দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাকে রীতিমতো অবজ্ঞা করেই তারা জানিয়ে দিয়েছিল, কোনোভাবেই প্লে-অফ খেলবে না তারা। কারণ হিসেবে সেই পুরোনো কথাবার্তা—বিদেশি খেলোয়াড়েরা নেই, এই ম্যাচ খেললে নাকি বিদেশি খেলোয়াড়দের পুরো মাসের বেতন দিতে হবে! শেষ পর্যন্ত নিজেদের অবস্থানে অটল দুটি ক্লাব। যার অর্থ, ৭ জানুয়ারি দ্বিতীয় প্লে-অফও হচ্ছে না।

ঘরোয়া ফুটবলে এর আগে মাঠে খেলতে অস্বীকৃতি জানানোর অনেক ঘটনাই আছে। মারামারি বা অন্য কোনো কারণে বড় বড় দল খেলেনি। কিংবা একদল অন্য দলকে ওয়াকওভার দিয়েছে। কিন্তু দুই দল জোট বেঁধেছে এই প্রথম। বাফুফের বাইলজ ভঙ্গ করায় দুই দলকেই এখন পেতে হবে কঠিন শাস্তি।

বুধবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দাঁড়িয়েই মহানগরী লিগ কমিটির সাবেক সভাপতি ও বাফুফের বর্তমান লিগ কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান আবদুর রহিম জানিয়ে দিয়েছেন, ‘খেলতে অস্বীকৃতি জানানোয় দুই দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে অবনমিত হয়ে যাবে।’ বাফুফে তাদের এর চেয়েও বড় শাস্তি দেওয়ার কথা ভাবছে।

বাইলজও বলছে, বড় অপরাধই করেছে এই দুটি ক্লাব। নিয়মানুযায়ী এই লিগে দুই দলের সব পয়েন্টই বাতিল হবে। সে ক্ষেত্রে একটা কিন্তু প্রশ্ন চলেই আসে। ফেনী সকার ও উত্তর বারিধারার বিপক্ষে পাওয়া আবাহনীর পয়েন্ট তাহলে কী হবে? আবাহনী তো চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে। এই দলের বিপক্ষে তাদের পয়েন্ট কেটে নেওয়া হলে পয়েন্ট টেবিল যদি ওলট পালট হয়! তখন কী হবে? তখন কী আবাহনীর চ্যাম্পিয়নশিপ কেড়ে নেওয়া হবে?

এসব প্রশ্নে আবদুর রহিম বাফুফের কোর্টে বল ঠেলেছেন। তবে চ্যাম্পিয়নশিপের প্রশ্নে তাঁর কথা, ‘চ্যাম্পিয়ন তো একটা দল হয়েই গেছে। কাজেই তাদের চ্যাম্পিয়নশিপ ঠিকই থাকবে। মূল লিগ তো হয়ে গেছে। এটি প্লে-অফ। তাই মূল লিগে দলগুলোর অবস্থান ঠিক থাকবে।’ তবে তাঁর এই ব্যাখ্যা ধোঁয়াশা তৈরি করেছে। এই ধোঁয়াশা এখন বাফুফে কীভাবে দূর করবে দেখার বিষয় এটিই।

তবে ফেনী সকারের আর্থিক পৃষ্ঠপোষক বাফুফের শীর্ষ কর্মকর্তা তাবিথ আউয়াল। ফেডারেশনের শীর্ষ কর্মকর্তার আশীর্বাদধন্য ক্লাব নিয়ম ভাঙায় ফুটবল অঙ্গনের অনেকেই অবাক।

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: