Sahre Business Logo
bangla fonts
facebook twitter google plus rss

ডলার আমদানিতে কর প্রত্যাহার হচ্ছে


০৭ জানুয়ারি ২০১৭ শনিবার, ১০:৪৯  এএম

শেয়ার বিজনেস24.কম


ডলার আমদানিতে কর প্রত্যাহার হচ্ছে

সরাসরি ডলার আমদানিতে বিদ্যমান কর ও মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) প্রত্যাহারের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রস্তাবে সায় দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এর ফলে ডলার আমাদানিতে এনবিআর এর আরোপিত ৩৭ শতাংশ কর ও ভ্যাট প্রত্যাহার হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই সংক্রান্ত একটি চিঠি এনবিআর চেয়ারম্যান বরাবর পাঠায়। তার প্রেক্ষিতে গতকাল এনবিআর জানায় বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রস্তাবে তারা সম্মত আছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক কর্মকর্তা জানান, বৃহস্পতিবার এনবিআর প্রস্তাবটির একটি মৌখিক সম্মতি দিয়েছে। রাজস্ব বোর্ড বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। শিগগিরই এই সংক্রান্ত অফিসিয়াল নোটিস দেওয়া হবে।

ওই চিঠিতে বাংলাদেশ ব্যাংক এনবিআরকে ট্যাক্স ও ভ্যাট ছাড়া স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংককে ১ কোটি ডলার আমদানির অনুমতি দিতে প্রস্তাব করা হয়।

ব্যাংকটি গত আগস্ট মাসে যুক্তরাজ্য থেকে ৫০ লাখ ডলার আমদানির প্রক্রিয়া শুরু করে। কিন্তু এনবিআর ওই আমাদানির ওপর ৩৭ শতাংশ কর ও ভ্যাট আরোপ করায় তা থেকে পিছিয়ে আসে ব্যাংকটি।

তবে এনবিআর চেয়ারম্যান অনুমতি দিলে ব্যাংকটি দুই ধাপ ওই ১ কোটি ডলার আমদানি করবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

বিদেশি এই ব্যাংকটি ২০১১ সালে সর্বশেষ ডলার আমদানি করে। তবে সম্প্রতি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর তহবিলে ডলার ঘাটতি দেখা দেওয়ায় সম্প্রতি আবার ডলার আমদানির উদ্যোগ নেয় স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক। কিন্তু আগস্টের পরে ডলার আমদানির ওপর ৩৭ শতাংশের বেশি কর আরোপ করে এনবিআর।

তবে গত বুধবার ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরী জানান, কর ও ভ্যাট প্রত্যাহারে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রস্তাবে সবুজ সংকেত দিয়েছে সরকার। গত সপ্তাহে বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি চিঠি সিনিয়র অর্থসচিব বরাবর পাঠায়।

ওই চিঠিতে বলা হয়, দেশের ব্যাংকিং খাত এখন নগদ ডলার সংকটে ভুগছে। দেশের অর্থনীতির স্বার্থে খুব শিগগিরই ব্যাংকগুলোতে ডলার দরকার। এই অবস্থা কাটাতে ডলার আমদানিতে বিদ্যমান কর ও ভ্যাট যত শিগগির সম্ভব প্রত্যাহার করা দরকার।

ওই দিন এসকে সুর জানান, বিদেশ থেকে ডলার পাঠানো বা দেশে থেকে ডলার আমদানিতে আরোপিত ভ্যাট ও কর প্রত্যাহার করা হলে ব্যাংক ও মানি এক্সচেঞ্জের মধ্যকার ডলারের দামের পার্থক্য কমে আসবে। ফলে প্রবাসীরা ব্যাংকের মাধ্যমেই দেশে টাকা পাঠাতে উৎসাহিত হবে।

ব্যাংকে ১ ডলারের বিনিময় হার ৭৮ থেকে ৭৯ টাকার মধ্যে। কিন্তু মানি এক্সচেঞ্জে এই হার ৮২ থেকে ৮৪ টাকা।

জানা গেছে, গ্রাহকের চাহিদা মেটাতে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রতি কার্য দিবসে গড়ে ১ কোটি ৬০ লাখ ডলার সরবরাহ করে থাকে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলারের সরবরাহ ১ কোটিতে নামিয়ে এনেছে। আর তারই প্রভাব পরেছে ব্যাংকিং খাতে

শেয়ারবিজনেস24.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: